হাই সিপিসি পাওয়ার উপায় | পর্যালোচনা

হাই সিপিসি পাওয়ার উপায়

আমরা অনেকে গুগল এডসেন্স কেন্দ্রিক ব্লগিং করি। আমাদের উপার্জনের বিশাল একটি অংশ কস্ট পার ক্লিক (সিপিসি) এর উপর নির্ভর করে থাকে। তাই আজকের এই আর্টিকেলে আমরা হাই সিপিসি পাওয়ার উপায় নিয়ে আলোচনা করবো।

হাই সিপিসি পাওয়ার উপায় গুলো কি কি ?

আমি ব্যক্তিগত ভাবে মনে করি যে, হাই সিপিসি পাওয়ার উপায় গুলো হচ্ছে আমাদের ওয়েবসাইটের ভাষা, নিশ, কিওয়ার্ড, ওয়েবসাইট স্ট্রাকচার, ট্রাফিক সোর্স, ট্রাফিক লোকেশন, এডস কাস্টমাইজেশন, এডস প্লেসমেন্ট, এডস প্রমোটর, ইউজার ইনটেন্ট এডস ইত্যাদি। তো চলুন এসব সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

ওয়েবসাইটের ভাষা

হাই সিপিসি পাওয়ার ক্ষেত্রে ওয়েবসাইটের ভাষা গুরুপ্তপূর্ন ভূমিকা রাখে। আমরা যারা বাংলা ভাষায় ব্লগিং করি তারা অপেক্ষাকৃত কম সিপিসি পেয়ে থাকি। পক্ষান্তরে যারা ইংরেজি ভাষায় ব্লগিং করি তারা সাধারনত সিপিসি বেশি পেয়ে থাকি। নিচের ইমেজ থেকে আমরা বাংলা এবং ইংরেজি ভাষার সিপিসি দেখলে আসল বিষয়টি বুঝতে সক্ষম হবো।

হাই সিপিসি নিশ

হাই সিপিসি পাওয়ার অন্যতম উপায় হচ্ছে নিশ। এছাড়াও এটি সার্চ রেংকিং এ গুরুপ্তপূর্ণ ভূমিকা রাখে। আপনার ওয়েবসাইটের নিশ যদি লো সিপিসি’র হয়ে থাকে সেক্ষেত্রে আপনি সিপিসি কম পাবেন। সুতরাং ওয়েবসাইট তৈরীর পূর্বে আপনাকে হাই সিপিসি নিশ বাছাই করতে হবে।

আমার সাজেশন থাকবে আপনি যদি নতুন হয়ে থাকেন তবে, বোর্ড নিশ সিলেক্ট না করে সাব নিশ/সাব ক্যাটাগরী বাচাই করবেন, সেক্ষেত্রে দ্রুত রেংক পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। নিচে আমি কিছু হাই সিপিসি নিশ উল্লেখ্য করলাম।

  • Insurance 61$
  • Gas/Electricity $58$
  • Loans 50$
  • Mortgage 46$
  • Attorney 48$
  • Lawyer 42$
  • Donate 42$
  • Conference Call $42$
  • Degree 40$
  • Credit 38$
  • Treatment 41$
  • Software 39$
  • Classes 36$
  • Recovery 34$
  • Trading 33$
  • Rehab 33$
  • Hosting 31$
  • Transfer 29$
  • Cord Blood 27$
  • Claim 25$

হাই সিপিসি কিওয়ার্ড

হাই সিপিসি পাওয়ার ক্ষেত্রে কিওয়ার্ড এর ভুমিকা অতুলনীয়। ভিজিটর কোন কিওয়ার্ড সার্চ করে আপনার সাইটে এসে এডস এ ক্লিক করলে তার বিনিময়ে কিছু $ পাওয়া যায়। সার্চ কৃত কিওয়ার্ড যদি হাই সিপিসি হয় সেক্ষেত্রে সিপিসি বেশি পাওয়া যায় এবং উপার্জন বেশি হবে অন্যথায় কম হবে। নিচে কিছু হাই সিপিসি কিওয়ার্ড উল্লেখ্য করছি।

  • car accident lawyer ny 342$
  • ft lauderdale car accident lawyer 48$
  • auto accident lawyers in chicago 59$
  • compensation mesothelioma 569$
  • personal injury lawyer ft lauderdale 43$
  • dallas truck accident lawyer 426$
  • mesothelioma compensation 326$
  • california motorcycle accident lawyer 47$
  • car accident lawyer augusta 463$
  • car accident lawyer in fort lauderdale 47$
  • lawyers for mesothelioma 265$
  • mesothelioma settlement fund 257$
  • car accident lawyer moreno valley 52$
  • pleural mesothelioma stages 318$
  • mesothelioma lawyer directory 290$
  • mesothelioma lawsuit settlements 61$
  • statute of limitations on mesothelioma claims 90$
  • car accident lawyer in phoenix 504$
  • mesothelioma attorney houston 545$
  • mesothelioma attorney california 55$
  • digital marketing degree florida 77$
  • online courses on digital marketing 73$
  • digital marketing certificate programs online 80$
  • digital marketing course review 67$
  • fitness gym software 63$
  • apogee fitness 60$
  • fit online classes 59$
  • rpac group fitness classes 57$
  • fitness management software 52$
  • internet marketing classes online 74$
  • courses on online marketing 83$
  • online marketing education 80$

ওয়েবসাইট স্ট্রাকচার

সিপিসি প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষ ভাবে ওয়েবসাইট স্ট্রাকচার এর উপর নির্ভর করে থাকে। আপনি অন্যান্য সব কিছু ঠিক-ঠাক করছেন কিন্তু আপনার সাইট দ্রুত লোড/প্রসেসিং হচ্ছে না কিংবা এডস লোড হচ্ছে না বা আপনার ওয়েবসাইট ইউজার ফ্রেন্ডলী নয় সেক্ষেত্রে ইউজার এক্সপেরিয়েন্স খারাপ হয় এবং সিপিসি কম হয়ে থাকে। তাই আমাদের ওয়েবসাইট গুলোর স্ট্রাকচার মানসম্মত রাখতে হবে।

ট্রাফিক সোর্স

ট্রাফিক সোর্স বলতে আপনার ওয়েবসাইটের ট্রাফিক কোথায় থেকে আসছে। তা হতে পারে অর্গানিক, সোস্যাল কিংবা রেফারেল। সার্চ ইঞ্জিন গুলো অর্গানিক ট্রাফিক কে অপেক্ষাকৃত বেশি প্রাধান্য দিয়ে থাকে।

মনে করুন, কোন একজন ট্রাফিক digital marketing course কিওয়ার্ড সার্চ করে সাইটে আসলে এবং সে এডস এ ক্লিক করলো। সেক্ষেত্রে হাই সিপিসি পাওয়ার সম্ভাবনা আছে কেননা কিওয়ার্ডটির সিপিসি হাই। কিন্তু পক্ষান্তরে কোন একজন ট্রাফিক সোস্যাল/রেফারেল থেকে আসলো এবং এডস এ ক্লিক করলো সেক্ষেত্রে তূলনামুলক সিপিসি কম হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। সুতরাং আমরা সর্বদা অর্গানিক ট্রাফিকের জন্য প্রচেষ্ঠা করবো।

ট্রাফিক লোকেশন

সিপিসি নির্ধারনের ক্ষেত্রে ট্রাফিক লোকেশন খুবই গুরুপ্তপূর্ণ। আমরা প্রায় সকলেই জানি যে বাংলাদেশি, ইন্ডিয়ান এবং পাকিস্থানের ট্রাফিক গুলো এডস এ ক্লিক করলে সিপিসি কম প্রদান করে কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র/যুক্তরাজ্যের কোন ট্রাফিক এডস এ ক্লিক করলে অপেক্ষকৃত বেশি সিপিসি পাওয়া যায়। সুতরা আমাদের উচিৎ সাইট তৈরীর পূর্বে উপযুক্ত লোকেশন নির্ধারন করা।

এডস কাস্টমাইজেশন

এডসেন্স থেকে অধিক উপার্জনের জন্য এডস কাস্টমাইজেশন তূলনামূলক ভূমিকা রাখে। আমরা অনেকে সাইটে গুগল এডসেন্স এপরুভ পেলে শুধুমাত্র অটো এডস চালু রাখি। কিন্তু হাই সিপিসি পাওয়ার অন্যতম উপায় হচ্ছে এডস কাস্টমাইজেশন।
আমরা ইচ্ছে করলে এডসেন্স থেকে বিভিন্ন সাইজের এডস কোড ক্রিয়েট করতে পারি। যেমন- স্কয়ার, ভার্টিক্যাল, হরিজন্টাল, 728*90, 300*300,300*250, 250*250, 300*600, 600*300, 970*250, ইত্যাদি সহ অনেক সাইজের তৈরী করা যায়। নিচের ইমেজ টি দেখলে আপনি পরিস্কার বুঝতে পারবেন।

গুগল এডসেন্স নিজস্ব ক্ষমতাবলে ভিন্ন সময়ে ভিন্ন ভিন্ন এডস সো করায় যা, ইউজার ফ্রেন্ডলী। আর সাধারণত এডস সাইজ অনুযায়ী সিপিসি নির্ধারন হয়ে থাকে। নিচে আমার এডসেন্স থেকে ক্রিয়েট করা বিভিন্ন এডস উল্লেখ্য করলাম।

এডস প্লেসমেন্ট

হাই সিপিসি পাওয়ার অন্যতম উপায় হচ্ছে এডস প্লেসমেন্ট। সঠিক ভাবে এডস প্লেসমেন্ট করা না হলে সিপিসি কম পাওয়ার পাশাপাশি ইউজার এক্সপেরিয়েন্স ও খারাপ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এডস প্লেসমেন্ট অনেকাংশ থিমের উপর নির্ভর করে। আমরা যারা ওয়ার্ডপ্রেস ইউজার তারা অনেকে এডস ইন্সার্টার প্লাগিন ব্যবহার করি। যদিওবা এটির ব্যবহার খারাপ নয় তবুও ম্যানুয়ালী এডস প্লেসমেন্ট অপেক্ষাকৃত ভাল।

আমি যেভাবে এডস প্লেসমেন্ট করি

হোম পেজের জন্যঃ- সাইটের হেডারে 728*90 সাইজ এডস, সাইডবারে 2টির মধ্যে 1টি স্কয়ার এডস (উপরে) অন্যটি 300*600 এডস(নিচে), হোম পেজে কন্টেন্টের মাঝে মাঝে 2টি 600*300 ও ফুটারে 970*250 এডস প্লেস করি।

কন্টেন্টের ভিতরঃ- সূচনা/ভুমিকার নিচে স্কয়ার এডস এবং 5/6 টি অনুচ্ছেদ পর পর ইমেজের (যদি থাকে) উপরে এবং নিচে বিভিন্ন সাইজের রেসপন্সিভ এডস কোড প্লেস করি। আমার পুরো এডস প্লেস সিস্টেম ম্যানুয়ালী করা। নিচে এডস প্লেসমেন্ট যুক্ত ইমেজ উল্লেখ্য করা হল।

এডস প্রমোটর

যারা এডস এ ক্লিকের উপর ভিত্তি করে অর্থ প্রদান করে তাদের এডস প্রমোটর বলা হয় এবং তারাই মূলত সিপিসি নির্ধারন করে গুগল এডসেন্স কে প্রদান করে আর গুগল এডসেন্স আমাদের প্রদান করে।

মনে করুন, আপনি/আমি বাংলাদেশ থেকে এডস প্রমোট করছি, আমাদের টাকার মান অন্যান্য কান্ট্রি থেকে কম হওয়ায় আমরা প্রতিটি ক্লিকের জন্য 5,10,50, 100 বা 500 টাকা নির্ধারন করলাম পক্ষান্তরে আমেরিকানরা অনেক উন্নত এবং অর্থশালী হওয়ায় তারা বেশি সিপিসি প্রদান করে থাকে। সেক্ষেত্রে তাদের প্রমোট করা এডস এ ক্লিক করলে হাই সিপিসি পাওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি থাকে।

ইউজার ইনটেন্ট এডস

উদাহরন দিয়ে বলি:- মনে করুন, আপনি কিছু দিন যাবত ভাবছেন, আপনি একটি মোটরবাইক কিনবেন। বিভিন্ন সময়ে আপনি গুগলে সার্চ করেন আর গুগল এটিকে প্রাধান্য দিয়ে আপানর প্রয়োজনীয় বিষয়াদি সামনে উপস্থাপন করে এবং গুগল সেটিকে নিজের কাছে সেভ রাখে।

আপনি যখন মোটরবাইক সংক্রান্ত তথ্যের জন্য অনলাইনে কোন কন্টেন্ট ভিজিট করতেছেন, সেই কন্টেন্টে এডস থাকলে আপনার ইন্টেন্ট অনুযায়ী গুগল সেখানে এডস সো করাবে কারন গুগল জানতে সক্ষম হয়েছে আপনি কি খুজছেন ! তখন আপনার কাংক্ষিত মোটরবাইকের এডস সো করাবে এবং তা দেখে ইন্টারেস্টেড হয়ে এডস এ ক্লিক করলেন। আর এই ক্লিকের বিনিময়ে এডসেন্স থেকে উপরোক্ত বিষয়াদির উপর ভিত্তি করে সিপিসি প্রদান করবে।

সুতরাং আমরা যদি উপরোক্ত বিষয়গুলো সঠিক ভাবে বিশ্লেষন করি তবে আমরা হাই সিপিসি পাওয়ার উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে সক্ষম হবো।

বিঃ দ্রঃ পুরো কন্টেন্টের আলোচিত বিষয়াদি সোস্যাল, রেফারেল এবং অর্গানিক ট্রাফিকের উপর ভিত্তি করে লিখিত। কোন প্রকার পেইড, ভিপিএন, আরডিপি ক্লিক কিংবা লোডিং সার্ভিসের জন্য প্রযোজ্য নয়।

মন্তব্য:- আলোচিত বিষয়ে ভূল-ভ্রান্তি মার্জনা করিবেন। শুধু এগুলোই যে হাই সিপিসি পাওয়ার উপায় তা নয় আরো থাকতে পারে। সু-দীর্ঘ দিন যাবৎ আমি গুগল এডসেন্স ব্যবহার করছি এবং আমার ক্ষুদ্র জ্ঞানে এগুলো উপযুক্ত মনে হয়েছে তাই আপনাদের মাঝে শেয়ার করছি। সবাইকে ধন্যবাদ।

2 Comments on “হাই সিপিসি পাওয়ার উপায় | পর্যালোচনা”

Leave a Reply

Your email address will not be published.